বাংলা আবাস যোজনা ঘরের লিস্ট 2023

Sharing Is Caring:
WhatsApp Group (Join Now) Join Now
Telegram Group (Join Now) Join Now
Facebook Page (Join Now) Join Now
Rate Our Post

বাংলা আবাস যোজনা বাড়ির তালিকা 2023 (বাংলা আবাস যোজনা) পশ্চিমবঙ্গ সরকার 2016 সালে চালু করা একটি আবাসন প্রকল্প। এই প্রকল্পের লক্ষ্য অর্থনৈতিকভাবে দুর্বল বিভাগ (EWS), নিম্ন আয়ের গোষ্ঠী (LIG) এবং মধ্য আয়ের গোষ্ঠীগুলিকে (MIG) সাশ্রয়ী মূল্যের আবাসন প্রদান করা।

বাংলা আবাস যোজনা বাড়ির তালিকা 2023 এই স্কিমটি পশ্চিমবঙ্গ হাউজিং ইনফ্রাস্ট্রাকচার ডেভেলপমেন্ট কর্পোরেশন (WBHIDCO) দ্বারা বাস্তবায়িত হয় এবং সুবিধাভোগীদের তাদের বাড়ি তৈরি করতে আর্থিক সহায়তা প্রদান করে।

বাংলা আবাস যোজনার অধীনে, সুবিধাভোগীরা তাদের নতুন বাড়ি নির্মাণ বা বিদ্যমান বাড়ির সংস্কারের জন্য 1.2 ​​লক্ষ টাকা থেকে 1.6 লক্ষ টাকা পর্যন্ত সরকারী ভর্তুকি পেতে পারেন।

ভর্তুকির পরিমাণ সুবিধাভোগীদের বার্ষিক আয় এবং বাড়ির অবস্থানের উপর ভিত্তি করে প্রদান করা হয়। স্কিমটি ভর্তুকির পরিমাণের পরিপূরক করার জন্য সুবিধাভোগীদের একটি ঋণ সুবিধাও দেয়।

আরও পড়ুন:

বাংলা আবাস যোজনা এটি পশ্চিমবঙ্গ সরকারের বৃহত্তর আবাসন নীতির অংশ, যার লক্ষ্য রাজ্যের সমস্ত বাসিন্দাদের জন্য সাশ্রয়ী মূল্যের এবং পর্যাপ্ত আবাসন প্রদান করা। এই প্রকল্পটি বিপুল সংখ্যক সুবিধাভোগীদের, বিশেষ করে রাজ্যের শহুরে এবং আধা-শহুরে এলাকায় সাশ্রয়ী মূল্যের আবাসন প্রদানে সফল হয়েছে।

বাঙালি আবাস যোজনার সংক্ষিপ্তসার

প্রকল্পের নাম বাংলা আবাস যোজনা প্রকল্প
বিভাগ বীমা এবং কল্যাণ পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়
সুবিধাভোগী পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের শহর
অনলাইন আবেদন শুরুর তারিখ চলমান……
অনলাইন আবেদনের শেষ তারিখ শেষ তারিখ সেট করা হয়নি
লক্ষ্য সামাজিক নিরাপত্তা প্রদান
ফান্ড রিলিজ 1.2 লক্ষ
প্রকল্পের ধরন রাজ্য সরকারের পরিকল্পনা
সরকারী ওয়েবসাইট www.wbprd.gov.in

বাংলা আবাস যোজনা বাড়ির তালিকা

বাংলা আবাস যোজনারাজ্যের জনগণকে সাশ্রয়ী মূল্যের আবাসন প্রদানের জন্য ভারতের পশ্চিমবঙ্গ সরকার দ্বারা চালু করা একটি আবাসন প্রকল্প। এই প্রকল্পের লক্ষ্য হল যারা কচ্ছা বাড়িতে বাস করে বা গৃহহীন তাদের নিজেদের পুচা ঘর দেওয়া।

এই প্রকল্পের অধীনে, সরকার যোগ্য সুবিধাভোগীদের নতুন বাড়ি নির্মাণ বা বিদ্যমান বাড়িগুলির মেরামত ও সংস্কারের জন্য আর্থিক সহায়তা প্রদান করে। প্রদত্ত আর্থিক সহায়তার পরিমাণ প্রয়োজনীয় কাজের প্রকৃতি এবং প্রাপকের আয়ের উপর নির্ভর করে।

স্কিমটি সুবিধাভোগীদের অন্যান্য সুবিধা যেমন বিদ্যুৎ, জল সরবরাহ এবং স্যানিটেশন প্রদান করে।

Read Also:  Manav Kalyan Yojana: Get up to Rs 48,000 Financial Support

“বাংলা আবাস যোজনা একটি বড় প্রকল্পের অংশ,”বাংলা আবাস যোজনা“যার লক্ষ্য পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যে সকলের জন্য আবাসন প্রদান করা।

বাংলা আবাস যোজনা পরিকল্পনার বৈশিষ্ট্য

বাংলা আবাস যোজনার প্রধান বৈশিষ্ট্যগুলি নিম্নরূপ:

সাশ্রয়ী মূল্যের আবাসন: এই প্রকল্পের লক্ষ্য হল পশ্চিমবঙ্গের জনগণকে, বিশেষ করে যারা বস্তিতে বাস করে বা তাদের নিজস্ব বাড়ি নেই তাদের সাশ্রয়ী মূল্যের আবাসন প্রদান করা।

আর্থিক সহায়তা: সরকার যোগ্য সুবিধাভোগীদের নতুন বাড়ি নির্মাণ বা বিদ্যমান বাড়ির মেরামত ও সংস্কারের জন্য আর্থিক সহায়তা প্রদান করে। প্রদত্ত আর্থিক সহায়তার পরিমাণ প্রয়োজনীয় কাজের প্রকৃতি এবং প্রাপকের আয়ের উপর নির্ভর করে।

প্রদান: পরিকল্পনাটি নির্মাণের খরচ কমাতে সুবিধাভোগীদের ভর্তুকি প্রদান করে। প্রদত্ত ভর্তুকির পরিমাণ সুবিধাভোগীর আয়ের উপর নির্ভর করে।

টার্গেট সুবিধাভোগী: এই প্রকল্পটি অর্থনৈতিকভাবে দুর্বল গোষ্ঠী (EWS) এবং নিম্ন আয়ের গোষ্ঠী (LIG) যাদের নিজস্ব পাকা ঘর নেই তাদের লক্ষ্য।

অন্যান্য লাভ: স্কিমটি সুবিধাভোগীদের অন্যান্য সুবিধা যেমন বিদ্যুৎ, জল সরবরাহ এবং স্যানিটেশন প্রদান করে।

বাস্তবায়ন: এই প্রকল্পটি পশ্চিমবঙ্গ হাউজিং অ্যান্ড ইনফ্রাস্ট্রাকচার ডেভেলপমেন্ট কর্পোরেশন (WBHIDCO) দ্বারা অন্যান্য সরকারি সংস্থার সহযোগিতায় বাস্তবায়িত হয়।

তত্ত্বাবধান: প্রকল্পের অগ্রগতি একটি ওয়েব-ভিত্তিক ট্র্যাকিং সিস্টেমের মাধ্যমে পর্যবেক্ষণ করা হয় যা সুবিধাভোগীদের অবস্থা, তাদের অর্থপ্রদান এবং নির্মাণ কাজের অগ্রগতি ট্র্যাক করতে সহায়তা করে।

সাধারণভাবেবাংলা আবাস যোজনা হল পশ্চিমবঙ্গের জনগণকে সাশ্রয়ী মূল্যের আবাসন এবং মৌলিক সুযোগ-সুবিধা প্রদানের লক্ষ্যে একটি ব্যাপক প্রকল্প।

বাংলা আবাস যোজনা পরিকল্পনার উদ্দেশ্য

বাংলা আবাস যোজনার প্রধান উদ্দেশ্য হল:

সাশ্রয়ী মূল্যের আবাসন: প্রকল্পের মূল উদ্দেশ্য হল সমাজের অর্থনৈতিকভাবে দুর্বল অংশ (EWS) এবং নিম্ন আয়ের গোষ্ঠী (LIG) যাদের একটি প্রাপ্তবয়স্ক বাড়ির মালিক নয় তাদের সাশ্রয়ী মূল্যের আবাসন প্রদান করা।

জীবনযাত্রার মান উন্নয়ন: স্কিমটির লক্ষ্য তাদের বিদ্যুৎ, জল সরবরাহ এবং স্যানিটেশন সুবিধার মতো মৌলিক সুযোগ-সুবিধা প্রদান করে তাদের জীবনযাত্রার মান উন্নত করা।

বস্তি হ্রাস: এই প্রকল্পের লক্ষ্য কাচ্চা বাড়ি বা বস্তিতে বসবাসকারী লোকেদের উন্নত আবাসন সুবিধা প্রদান করে রাজ্যে বস্তির সংখ্যা হ্রাস করা।

নারীর ক্ষমতায়ন: পরিকল্পনাটি মহিলাদের ক্ষমতায়নের উপর জোর দেয় এবং তাদের বাড়ির মালিকানা প্রদান করে এবং তাদের আর্থিক সহায়তার জন্য যোগ্য করে তোলে।

কর্মসংস্থান সৃষ্টি: প্রকল্পটির লক্ষ্য নতুন বাড়ি নির্মাণ এবং বিদ্যমান বাড়িগুলির মেরামত ও সংস্কারকে উৎসাহিত করে নির্মাণ খাতে কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি করা।

টেকসই উন্নয়ন: পরিকল্পনাটি আবাসন নির্মাণে পরিবেশবান্ধব উপকরণ ব্যবহারে উৎসাহিত করে এবং শক্তি-দক্ষ সুবিধা প্রদানের মাধ্যমে টেকসই উন্নয়নকে উৎসাহিত করে।

সাধারণভাবেবাংলা আবাস যোজনা প্রকল্পের লক্ষ্য হল মৌলিক আবাসন সরবরাহ করা এবং পশ্চিমবঙ্গের জনগণের জীবনযাত্রার মান উন্নত করা, পাশাপাশি টেকসই উন্নয়নের প্রচার করা এবং নির্মাণ ক্ষেত্রে কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি করা।

Read Also:  PM Vishwakarma Yojana Empowering Youth by Skill Development

আরও পড়ুন:

বাংলা আবাস যোজনা কর্মসূচির সুবিধা

বাংলা আবাস যোজনা কর্মসূচী পশ্চিমবঙ্গের মানুষের জন্য বেশ কিছু সুবিধা প্রদান করে, যার মধ্যে কয়েকটি হল:

আর্থিক সহায়তা: এই প্রকল্পটি নতুন বাড়ি নির্মাণ বা বিদ্যমান বাড়ির মেরামত ও সংস্কারের জন্য যোগ্য সুবিধাভোগীদের আর্থিক সহায়তা প্রদান করে। এটি সুবিধাভোগীদের উপর আর্থিক বোঝা হ্রাস করে এবং তাদের একটি পরিপক্ক বাড়ি তৈরি করার অনুমতি দেয়।

প্রদান: পরিকল্পনাটি নির্মাণের খরচ কমাতে সুবিধাভোগীদের ভর্তুকি প্রদান করে। এটি সুবিধাভোগীদের জন্য একটি বাড়ি তৈরির খরচ বহন করা সহজ করে তোলে।

সাশ্রয়ী মূল্যের আবাসন: এই স্কিমটি সমাজের অর্থনৈতিকভাবে দুর্বল অংশগুলি (EWS) এবং নিম্ন আয়ের গোষ্ঠীগুলিকে (LIG) সাশ্রয়ী মূল্যের আবাসন সরবরাহ করে যাদের একটি পরিপক্ক বাড়ির মালিক নয়৷

মৌলিক সুযোগ: এই প্রকল্পটি সুবিধাভোগীদের বিদ্যুৎ, জল সরবরাহ এবং স্যানিটেশন সুবিধার মতো মৌলিক সুবিধাগুলিও প্রদান করে। এটি মানুষের জীবনযাত্রার মান উন্নত করে এবং তাদের জীবনযাত্রার মান উন্নত করে।

কর্মসংস্থান সৃষ্টি: প্রকল্পটি নতুন বাড়ি নির্মাণ এবং বিদ্যমান বাড়ির মেরামত ও সংস্কারকে উৎসাহিত করে নির্মাণ খাতে কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি করে।

নারীর ক্ষমতায়ন: এই স্কিমটি মহিলাদেরকে বাড়ির মালিকানা প্রদান করে এবং আর্থিক সহায়তার জন্য যোগ্য করে তোলার মাধ্যমে তাদের ক্ষমতায়ন করে।

বস্তি হ্রাস: এই প্রকল্পের লক্ষ্য কাচ্চা বাড়ি বা বস্তিতে বসবাসকারী লোকেদের উন্নত আবাসন সুবিধা প্রদান করে রাজ্যে বস্তির সংখ্যা হ্রাস করা।

সাধারণভাবেবাংলা আবাস যোজনা পশ্চিমবঙ্গের জনগণকে সাশ্রয়ী মূল্যের আবাসন, মৌলিক সুযোগ-সুবিধা, কর্মসংস্থানের সুযোগ এবং মানুষের জীবনযাত্রার মান উন্নত করে বিভিন্ন সুবিধা প্রদান করে।

বাংলা আবাস যোজনা 2023 বিতরণ

বাংলা আবাস যোজনার এই প্রকল্পে, একটি মজবুত বাড়ি তৈরির জন্য সুবিধাভোগীদের তিনটি কিস্তিতে 1,20,000 টাকা (এক লক্ষ বিশ হাজার) দেওয়া হবে৷

প্রথম ইনস্টলেশন 54,000/- যার মাধ্যমে বাড়ির জানালার কাজ করতে হবে।

দ্বিতীয় কিস্তিতে 45,000/- বাড়ির লিন্টেল স্তর পর্যন্ত নির্মাণ সম্পূর্ণ করতে।

তৃতীয় কিস্তিতে 30,000/- দেওয়া হয়, এই টাকা দিয়ে ছাদ, প্লাস্টার, জানালা ও দরজার কাজ সম্পন্ন করা হবে।

সুতরাং, আপনি কোটার বিষয়টি বুঝতে পেরেছেন।

কে 2023-24 সালে আবেদন করতে পারে?

বাংলা আবাস যোজনা 2023-24-এর জন্য আবেদন করতে, আপনাকে নীচে উল্লিখিত পয়েন্টগুলি অনুসরণ করতে হবে।

সবার আগে – আবেদনকারীকে অবশ্যই পশ্চিমবঙ্গের স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে।দ্বিতীয় স্থানে – আবেদনকারীর পরিবারের বার্ষিক আয় অবশ্যই 1 লক্ষ টাকার কম হতে হবে৷ তবেই আপনি এই প্রকল্পের জন্য যোগ্য হবেন।তৃতীয় স্থানে – আবেদনকারীর অবশ্যই বিপিএল এবং রেশন কার্ড থাকতে হবে।কোয়ার্টার দ্বারা – আবেদনকারীর সম্পত্তি দলিল অবশ্যই একটি মুদ্রিত কপি বা কম্পিউটার রেকর্ডের সাথে থাকতে হবে।পঞ্চম – সতর্কতা অবলম্বন করা আবশ্যক যে আবেদনকারী ইতিমধ্যে ঘর পাকা না আছে. যদি হ্যাঁ, আপনি এই পরিকল্পনার জন্য আবেদন করতে পারবেন না।ষষ্ঠ – নিযুক্ত শ্রমিকরা এই ব্যবস্থা থেকে উপকৃত হতে পারে না।

Read Also:  Kisan Credit Card Scheme: Financial Assistance for Farmers

বাঙালি আবাস যোজনা বাড়ির তালিকা নথি

বাংলা আবাস যোজনা বাড়ির জন্য আবেদন করার জন্য আবেদনকারীদের নিচে উল্লেখিত নথিগুলির প্রয়োজন হবে।

আবেদনকারীদের আবেদন করার জন্য নীচে উল্লিখিত নথিগুলির প্রয়োজন হবে।

আবেদনকারীর কাছ থেকে প্যান কার্ড এবং অন্ধকার কার্ডঅনলাইনে আবেদন করলে, আবেদনকারীর আবেদনপত্র রেশন কার্ড প্রয়োজনীয়তা: আবাসিক শংসাপত্র (স্থায়ী বাসিন্দার পরিচয়পত্র) আবেদনকারীর একটি পাসপোর্ট আকারের ছবি এবং তাদের সর্বশেষ বার্ষিক প্রতিবেদন বেতন সনদপত্র প্রয়োজন হবে

যদি আপনার কাছে এই 6টি গুরুত্বপূর্ণ নথি থাকে তবে আপনি বাংলা Obs যোজনার জন্য আবেদন করতে পারেন

বাংলা আবাস যোজনা 2023 আবেদন প্রক্রিয়া

বাংলা আবাস যোজনার জন্য আবেদন করতে নিচে উল্লেখিত ধাপগুলি অনুসরণ করুন।

বাংলা আবাস যোজনা বাড়ির তালিকা

  • প্রথম আবেদনপত্র সংগ্রহ করতে আপনাকে নিকটস্থ গ্রাম পঞ্চায়েত বা গ্রাম প্রধান অফিসে যেতে হবে।
  • পরে সঠিক তথ্য দিয়ে আবেদন পূরণ করতে হবে।
  • তাই গ্রাম পঞ্চায়েত, গ্রাম প্রধান বা BDO অফিসে প্রয়োজনীয় নথিপত্র সহ বাংলা আবাস যোজনার আবেদনপত্র জমা দিতে হবে।

এই পদক্ষেপগুলি অনুসরণ করে, আপনি বাংলা আবাস যোজনা প্রকল্পের অধীনে আপনার নাম নথিভুক্ত করতে পারেন।

বাংলা আবাস যোজনা বাড়ির তালিকা যাচাই

বাংলা আবাস যোজনা প্রকল্পের অধীনে বাড়ির তালিকা দেখতে নীচের পদক্ষেপগুলি অনুসরণ করুন৷

সবার আগে: বাংলা আবাস যোজনা প্রকল্পের অধীনে বাড়ির তালিকা দেখতে এই অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে যান৷দ্বিতীয় স্থানে: হোম পেজ ওপেন হলে Awaasoft অপশনে ক্লিক করে Report এ ক্লিক করুন।তৃতীয় স্থানে: এখন এটি আপনার রাজ্যের নাম, জেলার নাম, ব্লক, শহর বা শহরের নাম, অঞ্চলের নাম বা পৌরসভার নাম সহ জমা দিন।

অবশেষেএখন আপনি আপনার অঞ্চলের বাড়ির তালিকা দেখতে পাবেন।

ভিডিওর মাধ্যমে আরও জানুন:

অবশেষে, আপনি বাংলা আবাস যোজনা প্রকল্প সম্পর্কে আরও জানতে এই ভিডিওটি দেখতে পারেন।

ভিডিও ক্রেডিট: বাংলা ভূমি

তারপর আমি যাচ্ছিএই নিবন্ধটির মাধ্যমে, আপনি বাংলা আবাস যোজনা প্রকল্প সম্পর্কে একটি পরিষ্কার ধারণা পাবেন। আপনার যদি এখনও কোন স্বীকারোক্তি থাকে তবে নীচে মন্তব্য করতে ভুলবেন না।

আমরা আপনার মন্তব্যের প্রতিক্রিয়া জানাতে আমাদের যথাসাধ্য চেষ্টা করব। সরকার সম্পর্কিত আরও তথ্যের জন্য আপনি আমাদের অন্যান্য নিবন্ধগুলিও পড়তে পারেন।

আরও পড়ুন:

বাংলা হাউজিং স্কিম 2023: প্রায়শই জিজ্ঞাসিত প্রশ্ন


পোস্ট ভিউ: 1,287

मैं आपका समर्पित सरकारी योजना सूचना प्रदाता हूं, जो आपको हमारे राष्ट्र को सशक्त बनाने और उत्थान के लिए डिज़ाइन की गई नवीनतम सरकारी योजनाओं और पहलों के बारे में सूचित रखने के लिए प्रतिबद्ध है। सार्वजनिक सेवा के प्रति जुनून और जटिल जानकारी को सरल बनाने की आदत के साथ, मैं यह सुनिश्चित करने के लिए यहां हूं कि आपके पास विभिन्न सरकारी योजनाओं (योजनाओं) पर नवीनतम और प्रासंगिक जानकारी तक पहुंच हो।

Leave a Comment